ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বাগেরহাটে পালিত হচ্ছে কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ‘র জন্মবার্ষিকী

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: অক্টোবর ১৬, ২০২৩, ০৮:৩০ রাত  

ছবি সংগৃহীত

ভালো আছি ভালো থেকো, আকাশের ঠিকানায় চিঠি লিখো’ গানেরর স্্রষ্টা  তারুণ্য ও সংগ্রামের দীপ্ত প্রতীক কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ’র আজ (সোমবার) ৬৭তম জন্মবার্ষিকী আজ। ১৯৫৬ সালের এ দিনে (১৬ অক্টোবর) বরিশালের রেডক্রস হাসপাতালে জন্মগ্রহণ করেন এ কবি। তবে পরবর্তীতে বাবার চাকুরীর সূত্রে মোংলায় বসবাস শুরু করেন কবির পরিবার। বাংলাদেশের কবিতায় অবিসস্মরণীয় এ কবির শিল্পমগ্ন উচ্চারণ তাকে দিয়েছে সত্তরের অন্যতম কবি-স্বীকৃতি।

দিনটি স্মরণে বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার মিঠাখালীতে কবির নিজ গ্রামে নানা আয়োজন করা হয়েছে।এর মধ্যে রুদ্র স্মৃতি সংসদ ও স্থানীয়দের পক্ষ থেকে কবির সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিল, দোয়া এবং রুদ্র স্মরণানুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।স্মরণসভা শেষে রুদ্রের কবিতা আবৃত্তি ও রুদ্রের গান পরিবেশিত হবে। এছাড়া দিনটি স্মরণে উন্নয়ন সংস্থা ‘আমাদের গ্রাম’ কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যাপীঠে দিনব্যাপী বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবার আয়োজন করেছে।

আরও পড়ুনঃ জয়পুরহাটে " মুজিব: একটি জাতির রুপকার" দেখতে উপচে পড়া ভিড়

মাত্র ৩৫ বছরের (১৯৫৬-১৯৯১) স্বল্পায়ু জীবনে তিনি সাতটি কাব্যগ্রন্থ ছাড়াও গল্প, কাব্যনাট্য এবং ‘ভালো আছি ভালো থেকোসহ  অর্ধ শতাধিক গান রচনা ও সুরারোপ করেছেন। পরবর্তীকালে এ গানটির জন্য তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি প্রদত্ত ১৯৯৭ সালের শ্রেষ্ঠ গীতিকারের (মরণোত্তর) সম্মাননা লাভ করেন।‘উপদ্রুত উপকূল’ ও ‘ফিরে চাই স্বর্নগ্রাম’ কাব্যগ্রন্থ দুটির  জন্য ‘সংস্কৃতি সংসদ’ থেকে পরপর দু’বছর ‘মুনীর চৌধুরী সাহিত্য পুরষ্কার লাভ করেন।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ও জাতীয় কবিতা পরিষদ গঠনে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।এ কবি ১৯৯১ সালের ২১ জুন মাত্র ৩৫ বছর বয়সে মারা যান।