ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

৫০ রানের আগেই ৪ উইকেট নেই বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক

 প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০৬, ২০২৩, ০৬:১২ বিকাল  

ছবি সংগৃহীত

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়িনশিপের নতুন সাইকেলের প্রথমটিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দেড়শ রানে জিতে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে বাংলাদেশ। এবার হোম অব ক্রিকেটেও লাল-সবুজের সামনে নতুন মাইলফলকের হাতছানি। সিরিজের শেষ টেস্টে পরাজয় এড়াতে পারলেই প্রথমবার কিউইদের বিপক্ষে সিরিজ জিতবেন শান্ত-মুশফিকরা।

সিরিজ জয়ের মিশনে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক। ব্যাটিংয়ে নেমে দেখেশুনেই খেলতে থাকেন দুই ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় ও জাকির হাসান। এরপর বৈরী আবহাওয়ায় নতুন বলের চ্যালেঞ্জ সামলে ১০ ওভারে স্কোরবোর্ডে ২৫ রান যোগ করেন দুই ওপেনার।

ধৈর্যের পরীক্ষায় একাধিকবার পাস নম্বর পেলেও প্রতিপক্ষকে বেশ কয়েকবার সুযোগও দিয়েছেন তারা। কিন্তু ইনিংসের ১১তম ওভারে মিচেল স্যান্টনারের বলে মিড-অনের ওপর দিয়ে বড় শট খেলতে গিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন জাকির। কেন উইলিয়ামসের তালুবন্দি হওয়ার আগে ২৪ বলে ৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার।

তিনে নামা শান্ত স্যান্টনারের পরের বলগুলো সামাল দেন। তবে পরের ওভারেই উইকেট হারিয়ে ফেলেছে লাল-সবুজেরা।

এজাজের বল ডিফেন্স করতে গিয়ে শর্ট লেগে ল্যাথামকে সহজ ক্যাচ দিয়ে বসেন ওপেনার জয়। ৪০ বলে ১৪ রান করে ফিরেছেন এই ওপেনার।

এর খানিক পরে চারে নামা অভিজ্ঞ মমিনুল হকও ফিরেছেন। এজাজের বলে তিনিও ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন। ফেরার আগে খেলেন মাত্র ৫ রানের ইনিংস।

এরপর চাপ আরও বাড়িয়েছেন ভারপ্রাপ্ত টেস্ট অধিনায়ক শান্ত। ইশ সৌধির পরিবর্তে এই ম্যাচে একাদশে সুযোগ পাওয়া মিচেল স্যান্টনারের স্পিন ঘূর্ণিতে লেগ-বিফোরের ফাঁদে পড়ে ব্যক্তিগত ৯ রানেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন তিনি।

এই মুহূর্তে দিপুর সঙ্গে ক্রিজে আছেন মুশফিকুর রহিম। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৫ দশমিক ২ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৪৭ রান।