ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মুশফিকের আউট নিয়ে হতাশ ধারাভাষ্যকার তামিম

স্পোর্টস ডেস্ক

 প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০৭, ২০২৩, ০১:৩৫ রাত  

ছবি সংগৃহীত

টেস্ট ক্রিকেটকে বলা হয় ধৈর্যের খেলা। যার ধৈর্য যত বেশি, ততই সৌন্দর্য ঠিকরে বেরোয় ব্যাট থেকে। ঢাকা টেস্টে অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম খেলছিলেন দেখেশুনেই। হঠাৎ কী যেন হলো, করে বসলেন বিরল এক ভুল! ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনের দ্বিতীয় সেশনে দেখা মিলল এক অবিশ্বাস্য দৃশ্যের। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে হাত দিয়ে বল আটকিয়ে ‘অবস্ট্রাকটিং দ্য ফিল্ড’ আউট হলেন মুশফিকুর রহিম। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১১তম আর টেস্টে অষ্টম ব্যাটার হিসেবে এমন আউট হলেন মুশফিক। তার এমন আউট নিয়ে বইছে সমালোচনার ঝড়।

ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার (৬ ডিসেম্বর) ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসের ৪০.৪ ওভারে। কাইল জেমিসনের করা সেই ওভারের চতুর্থ বলটি ব্যাকফুটে খেলেছিলেন মুশফিক। বল ব্যাটে লেগে মাটিতে পড়ে বাউন্স খেয়েছিল। স্ট্যাম্পে বল লাগার আশঙ্কায় মুশফিক ইচ্ছাকৃতভাবে বলটি ডান হাত দিয়ে ধরেন। নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়েরা এতে ‘অবস্ট্রাকটিং দ্য ফিল্ড‘ আউটের আবেদন করেন। তৃতীয় আম্পায়ার ভিডিও রিপ্লে দেখে কিউইদের আবেদনে সাড়া দেন। ৮৩ বলে ৩৫ রানে শেষ হয় মুশফিকের ইনিংস।

২০১৭ সালের আগ পর্যন্ত এই আউটকে ‘হ্যান্ডেল্ড দ্য বল’ বলা হলেও, এখন এটি ‘অবস্ট্রাকটিং দ্য ফিল্ড‘ নামে পরিচিত। মুশফিকের এই আউট নিয়ে তৎক্ষণাৎ ধারাভাষ্য কক্ষে নিজের হতাশা প্রকাশ করেন তামিম ইকবাল। ঢাকা টেস্টে আন্তর্জাতিক ধারাভাষ্যকার হিসেবে অভিষেক হয়েছে তামিমের।

মুশফিকের আউটের পর তামিম বলেন, ‘এটি খুবই হতাশাজনক। ৮০টির ওপর টেস্ট খেলেছে মুশফিক। তার এই কাজ করাটা ভীষণ হতাশার। সে একজন সিনিয়র খেলোয়াড়। এমনটা অনিচ্ছাকৃতভাবে ঘটতে পারে, কিন্তু সে এত ম্যাচ খেলেছে। তার এটা জানা উচিত ছিল।